শেয়ার করুন:

ভাঙলো প্রণোদনা

ধারণ করবার আগেই ভাঙলো প্রণোদনা
ক্ল্যারিওনেট বাজিয়ে যারা গাইলো মানবতার গান
তারাও সাদা মানুষ ও কালো মানুষে ভাগ হয়ে গেলো
সুপ্রিমেসির বীভৎসতা উড়ে আসলো বাদুড়ের মতো ।

যেসব সহজ প্রতিকৃতি আঁকা হয়েছিল
সেসবও জটিল হতে থাকল ক্রমাগত
যেন কুন্তার কান্তে উঠে আসলো আবারো ক্রীতদাসের শেকল পরে ।

এখন কি শোনা যাবে মার্টিনের আত্মার ক্রন্দন!

 

কোনো কোনো রক্তপাত

কোনো কোনো রক্তপাত গৌরবের, শ্লাঘার
কোনো কোনো রক্তপাত বীভৎসতার
আমাদের রক্তপাতের ইতিহাস মাড়িয়ে যারা উঠে আসে
তারা অধ:পাতকে তুলে এনেছিল শীর্ষচূড়ায় ।

আর এখন এখানে ওখানে শীৎকার চিৎকার
অরুন্তুদ আর্তনাদ
চারিভিতে বীভৎস রক্তপাত
কারা উঠে আসে দাবানলসম অগ্নুৎপাতে, উৎপাতে !

 

ধরিত্রীর ঘাড় ও উন্মাদ

প্রদর্শনী হচ্ছে বিমূর্ত শিল্পের
আর ক্ল্যাপ পড়ছে সুড়সুড়ির
ভেজা ভেজা স্যাঁতসেঁতে পংক্তির
মেঠো বক্তৃতায় উড়ছে ফেঁসো

থকথকে কাদার মতো লেপ্টে আছে
ফ্যাকাশে স্বপ্নের ঝুলকালি
প্যারাম্বুলেটারে দুলছে শিশু
চোখে রাজ্যের পিঁচুটি

যেন অবসাদগ্রস্ত গ্রেগর সামসা জড়বৎ কুণ্ডলিপাকানো
হাওয়াবদলের মতো বদলে যাচ্ছে সবকিছু আর
ধরিত্রীর ঘাড় ধরে ঝাঁকাচ্ছে একাধিক উন্মাদ ।

 

বারান্দায় এতো রোদ ছিল

বারান্দায় এতো রোদ ছিল
এখন ছায়া
আকাশ এতো নীল ছিল
এখন মেঘলা ।

অনেকটাই জীবনের মতো ।

Facebook Comments