আড্ডাপত্র

১১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১; ২৫ মে, ২০২৪;বিকাল ৫:১৬

বাবুল আক্তার এর গুচ্ছকবিতা

আড্ডাপত্র

অক্টো ১১, ২০২০ | গুচ্ছ কবিতা

বিরোধাভাস– দুই

সকাল যখন ঘুমিয়ে ছিলো
রাত্রি ছিলো জেগে
নিকট তখন দূর-সুদূরে
সুদূর বুকের পাশে

নগর মাঝে রাজ্য ছিলো
থলের ভেতর নগর
আমজনতা পায় কী করে
রাজ-বণিকের খবর!

তরুণেরা বৃদ্ধ আমূল
বৃদ্ধ অবোধ শিশু
সাগর হলো শুকনা ফাটা
ডাঙায় নোনা পানি!

শান্তিপূর্ণ সহবাস

অযত্নে বেড়ে ওঠা কচুবন হতে
উদ্ধার করা হলো কাস্তেটা
যা প্রপিতামহ হারিয়ে ফেলেছিলেন।
মরিচায় ধার মরে গেলেও
বিস্তর বেড়েছে ভার!

কামার জানালো– লোহাশিল্প অতীত!
চোখ কচলে কুজ্ঝটিকার ভেতর
তাকিয়ে দেখলাম
প্লাস্টিক কারখানা বড় হচ্ছে
সিলিকন আসছে
কাস্তের মরিচা হলো ললাট লিখন
কীসে হবে আগাছা নিধন?
আরিচাঘাটে কচুতলায় বাজার বসেছে
মানুষ আর শুয়োরের!

এরপর আমার আর আসা হবে না

আমি আরেকবার বাড়ি ফিরে যাবো
খুঁজে নেবো চাবি
যদিও তা ফেলে দিয়েছি মরা কার্তিকে- গাঙে
ফের খুঁজবো– আপত্তি নেই মোটেও
খুব বেশি দেরি করবো না যদিও
তথাচ স্বল্পতম সময়ে খুঁজে দেখবো
ইনটার্নাল মেমোরিতে মরিচা ধরেছে কি না
ডিপ ফ্রিজে অহেতুক তুলে রাখা
স্বপ্নের হাড়– গোড় এখনও কিছু আছে কি না,
আলমারিতে সাজানো সুঠাম সাতাশটি বসন্ত
সজীব আছে– নাকি যত্ন করে মরে গেছে,
তেত্রিশের মধ্যাহ্নসূর্যে যে গ্রহণ লেগেছিল
তার রাহু বহাল তবিয়তে বেঁচে বেরাচ্ছে নাকি
এখনও আগের মতোই

আমি শেষবারের মতো আরও একবার
শুধু একবার বাড়ি যাবো
কেন না আমাকে দেখতে হবে
যেখানে পদচিহ্ন রেখেছিলাম
ধুলো ভেবে মুছে ফেলেছে নাকি কেউ

দেওয়ালে টাঙানো আমার ছবিটা যদি মুখ খোলে
হিমায়িত স্বপ্নের দুয়ারে আবার
তালা লাগিয়ে চলে আসবো
এরপর আমার আর ফিরে আসা হবে না

নীল আঁচলের নিচে

সব টাওয়ার ধসে গেছে
বিচ্ছিন্ন হয়েছে ডাটা আর ওয়াইফাই সংযোগ
ডাক হরকরা নেই
জং ধরা টিনের বাক্সটা শুয়ে আছে ঘাসে
সাত মহলা বাড়ি তোমার, খবর পৌঁছে না
তবু বার্তা লিখে আসমানে ওড়াই!

সাত প্রস্ত নীল শাড়িতে ঢাকা রোশনাই
তার নিচে কালো কালো মেঘের মৌচাক ঘিরে
উড়ে উড়ে লাল পাড় দেখেছি কেবল
আর অস্ফুটে বলতে চেয়েছি–
মুছে ফেলো কালো ছায়া
ও’চোখে আগুন জ্বেলে আমাকে পোড়াও
ছাইটুকু শুধু ঢেকে রেখো আঁচলের নিচে
আমি স্বর্গ চাই না।

কৌণিক দূরত্বে দাঁড়িয়ে

যা- একবার ঘুরে দেখে আয়
ডানে ডানপিটে অশত্থ, বামে ব্যামো
পেছনে পড়ে আছে ইতিহাস–
ভাঙা কলসের মতো
সামনে মহাশ্মশান!

বিষুবরেখা ঘুরে কৌণিক দূরত্বে দাঁড়িয়ে
যদি দেখিস
মধুর ক্যান্টিন আর প্যারিস রোড
বরফ হয়ে জমে আছে ঘাসে
পাশেই পড়ে আছে খণ্ডিত চারুহস্ত
ব্যানার ফেস্টুন উড়ে গেছে
তখন বুঝবি তোরাই বর্গি, তোরাই চেঙ্গিস
ফিরিঙ্গি বলে গালি দিবি কাকে?

Facebook Comments

আড্ডাপত্রে লাইক দিন

আর্কাইভ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১